একজন হকি পেনাল্টি জাদুকর মামুনুর রহমান চয়ন

Page Visited: 95
64 Views
 

একজন পেনাল্টি জাদুকর মামুনুর রহমান চয়ন।

আমাদের ফরিদপুর এর গর্ব তথা বাংলাদেশের গর্ব। যিনি ২০১৮ সালে আন্তর্জাতিক হকি থেকে বিদায় নিয়েছিলেন। বাংলাদেশের হকিতে ফরিদপুরের অবদান অসামান্য। পুরোনো ঢাকার পরই দেশের একসময় সবচেয়ে বেশি হকি খেলোয়াড় উঠে এসেছে আমাদের ফরিদপুর জেলা থেকে,বিশেষ করে ফরিদপুর সদর উপজেলার কমলাপুর এলাকা থেকে। যার সর্বশেষ দুই বড় তারকা ছিলেন ইসা ও মুসা দুই ভাই। তাদের জন্ম ফরিদপুর সদর উপজেলার কমলাপুর গ্রামে, চয়নও এই কমলাপুরেরই সন্তান। চয়নের বাবা ছিলেন একজন চাকরিজীবি। তবে হকির সাথে পারিবারিক একটা সম্পর্ক ছিলো। চাচা আরিফুর রহমান ঢাকায় হকি খেলতেন। তিনি ওয়ারি ক্লাবেও খেলেছেন। চয়ন, চাচার দেখাদেখি হকি খেলতেন। জাতীয় দলে সহ-অধিনায়ক ছিলেন লম্বা সময়। এরপর বছর তিনেক অধিনায়কত্ব করেছেন চয়ন।
এশিয়া কাপ বাছাইপর্ব, এশিয়ান গেমস, বিশ্ব হকি লিগে অধিনায়কত্ব করেছেন তিনি। এর মধ্যে ৪০ বছর পর দলকে এশিয়ান গেমসে ষষ্ঠ করতে পারাটাই ক্যারিয়ারের সেরা অর্জন বলে মনে করেন তিনি। তিনি চারটি এশিয়ান গেমসে খেলা মামুনুর রহমান চয়ন। ২০১৮ সালে আন্তর্জাতিক হকি থেকে বিদায় নিলেন দেশের হকি অঙ্গনের সিনিয়র পেনাল্টি কর্নার (পিসি) স্পেশালিস্ট। তবে ঘরোয়া হকিতে খেলছেন এখনও।
মামুনুর রহমান চয়ন এর জন্য আমরা গর্বিত তবে আজ পর্যন্ত আমরা ফরিদপুর এর পক্ষ থেকে চয়নসহ ফরিদপুর এর অন্যান্য হকি প্লেয়ারদের কোনো সংবর্ধনা দিতে পেরেছি কি না মনে পরে না। তবে তার প্রতি আমাদের যে ভালোবাসা, আশাকরি তার হৃদয় স্পর্শ করবে। সেই সাথে আমাদের কমলাপুর থেকে উঠে আসা অন্যান্য সকল হকি প্লেয়ার যারা আছেন তাদের প্রতিও অকৃত্রিম ভালোবাসা।আমাদের ফরিদপুর জেলা হতে যেসকল হকি প্লেয়ার উঠে এসেছেন তার মধ্যে অধিকাংশই ফরিদপুর সদর উপজেলার কমলাপুরের বাসিন্দা।

যেসকল হকি খেলোয়ার ফরিদপুর থেকে খেলার সুযোগ পেয়েছেন এবং দেশের জাতীয় হকি খেলাকে সমৃদ্ধ করেছে তারা হচ্ছেন তুর্য মাহাবুব হারুন, আরিফুর রহমান,শরাফত,ইয়ামিন ,ইউসুফ, জিহাদ , রুবেল, জাবেদ, সালাম,মোঃএ কে এম খালেদ,ইসা,মুসা, মামুনুর রহমান চয়ন,কৌশিক আহমেদ,হাসান,রুবেল,সাব্বির ইউসুফ,আলমগীর চুন্নু,নান্নু,ফুয়াদ ইউসুফ, বায়েজিদ আহমেদ, কামরুল আহসান, এজাজ,মিরাজুল, গিয়াস উদ্দীন রুবেল, আশিকুর রহমান,হায়দার,ফজলুল কবির চাঁদ ,কাজী শামীম জা‌বেদ,সালাম। এখানে অনেকেই আছে যারা জাতীয় হকি দলে বিশেষ অবদান রেখেছেন, অধিনায়কত্বও করেছেন তাদের সকলের প্রতি জানাচ্ছি শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *