ব্যারিষ্টার সুমন মুগ্ধ হলেন ফরিদপুরের ভাঙ্গা ইন্টারসেকশন সড়ক দেখে

Page Visited: 1103
67 Views

গত ১৬ই নভেম্বর ২০২০ তারিখে তিনি ফরিদপুর এর ভাঙ্গা হয়ে
যাবার পথে ভাঙ্গা ইন্টারসেকশনে কিছু সময় বিরতি নেন এবং এই আধুনিক সড়কের
সৌন্দর্য্য উপভোগ করেন।

তিনি সৌন্দর্য্য বর্ননা করতে গিয়ে ভাঙ্গা ইন্টারসেকশনকে নিইউয়র্ক এবং মালয়েশীয়ার সাথে তুলনা করেন। এসময় তিনি সড়কটির বিভিন্ন দিক ঘুরে ঘুরে দেখান কোন দিকে কোন জেলা গিয়েছে। তিনি বলেন শক্ত নেতৃত্বের হাতে দেশ পরিচালিত হলে এমন বড় বড় প্রকল্প
বাস্তবায়ীত সম্ভব। তিনি আরও বলেন সরকারের উন্নয়ন যদি ভালো নাও লাগে তাহলে সবাই জেনো ভাঙ্গার এক্সপ্রেস হাইওয়েতে এসে ঘুরে যান এবং দেখার পরে বলুন আপনাদের পছন্দ হয় কি না।
এই সড়কটি দেখার জন্যই প্রতিবছর হাজার হাজার দর্শনার্থীর আগমন ঘটবে আর যখন
পদ্মাসেতু চালু হবে তখন দেশের অর্থনীতিতেও অবদান রাখবে যোগ হবে নতুন জিডিপি
মাত্রা। দক্ষিণাঞ্চলের দিনবদল হবে বলে সকলে মনে করছেন । পদ্মাসেতু কতটা জরুরী তা
এই অঞ্চলের মানুষ উপলব্ধি করতে পারছে । ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করতে হয় ফেরীর
জন্য সেই সাথে তীব্র যানজট আরও কত ভোগান্তি তা বলে শেষ করা যাবে না।

আরও আগে কেনো পদ্মাসেতু
তৈরী হলো না এমন প্রশ্ন সকলের মনেই জাগে। ফরিদপুরের ভাঙ্গা থেকে পদ্মাসেতু হয়ে
ঢাকায় যোগাযোগ অনেকটা সহজ হয়ে যাবে গড়ে উঠবে নতুন নতুন শীল্পকারখানা সুযোগ তৈরী
হবে কর্মসংস্থানের। একটি দেশের উন্নয়নে তার সড়ক এবং সেতু কতটা পরিবর্তন এনে দিতে
পারে তা দেখতে হলে অবশ্যই আপনাদের  এই
অঞ্চলে ঘুরে আসতে হবে।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *