ফতেহাবাদ ফরিদপুরের পূর্ব নাম

Page Visited: 162
124 Views

ফতেহাবাদ ছিলো বৃহত্তর ফরিদপুর জেলার পূর্বনাম, কিভাবে এই ফতেহাবাদ নামকরণ হয়েছিল চলুন জেনে নেই।
ফতেহাবাদে সুলতানি আমলে বাংলার টাকশাল ছিলো।
টাকশাল কি?
টাকশাল হলো মুদ্রা উৎকীর্ণ ও জারি করার কেন্দ্র,১২০৪ খ্রিস্টাব্দে ইখতিয়ার উদ্দিন মোহাম্মদ বিন বখতিয়ার খলজি সেন রাজা লক্ষণ সেনকে পরাজিত করেন। ফলে বাংলায় মুসলিম শাসন শুরু হয়। তখন হতে বাংলার মুসলিম সুলতানগণ বিভিন্ন প্রকার স্বর্ণ ও রৌপ্য মুদ্রা প্রবর্তনের জন্য টাকশাল নির্মাণ করেন। শুধু রাজধানী নয় গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক ও বাণিজ্যিক শহর হতেও মুদ্রা তৈরি হত।
মুসলিম সুলতানগণ ১২০৪ থেকে ১৫৬৫ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত বাংলার বিভিন্ন জায়গায় টাকশাল নির্মাণ করেন। বিভিন্ন সময়ে গড়ে ওঠা ২১টি টাকশাল শহরের নাম জানা যায়।
লখনৌতি টাকশাল: ইন্ডিয়াতে অবস্থিত গঙ্গা নদীর পশ্চিম তীরে ১ম বাংলার প্রাচীন টাকশাল শহর ছিলো।
১২০৪ খ্রীস্টাব্দে ইখতিয়ার উদ্দিন মোহাম্মদ বিন বখতিয়ার খলজি বঙ্গ বিজয়ের পর লখনৌতিতে রাজধানী প্রতিষ্ঠা করেন। এখানেই প্রথম টাকশাল নির্মাণ করা হয়। এখান থেকে মুদ্রিত প্রথম মুদ্রা ছিল সুলতানা রাজিয়ার রৌপ্য মুদ্রা (৬৩৪ হিজরি/ ১২৩৬ খ্রিষ্টাব্দ)। ১৩৩২ খ্রীস্টাব্দ পর্যন্ত এ টাকশাল চালু ছিল।
ফতেহাবাদ : মোগল আমলের ফতেহাবাদ সরকার বর্তমান কালের ফরিদপুর শহরের সাথে শনাক্ত করা হয়েছে। সুলতান জালাল উদ্দিন মোহাম্মদ শাহ্ ফতেহাবাদ টাকশাল প্রতিষ্ঠা করেন। এ টাকশাল হতে ১৪৩৬ খ্রিষ্টাব্দে প্রথম মুদ্রা তৈরি হয়। সুলতান রোকন উদ্দিন বারবক শাহ্ ও তাঁর পুত্র সুলতান শামসুদ্দিন ইউসুফ শাহের রাজত্বকালে অল্প বিরতিসহ বাংলার স্বাধীন সুলতানদের আমলে ফতেহবাদ টাকশাল চালু ছিল।
ফতেহাবাদ ছিল একটি পরগনার নাম। এ পরগনার অন্তর্ভুক্ত ছিল ঢাকা জালালপুর নামের আরেকটি পরগনা। ফতেহাবাদ ছিল হুসাইন শাহের প্রধান শহরের নাম, যা লক্ষণাবতীর শাসক জালালউদ্দিন ফতেহ শাহের (১৪৮১-৮৭) নামানুসারে ফতেহাবাদ নামকরণ করা হয়েছে।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *