আহত একজনের মৃত্যু সালথা উপজেলা তান্ডবের ঘটনায়

Page Visited: 494
70 Views

সালথা উপজেলার সরকারি অফিস ,থানায় হামলার ঘটনায় ৮৮ জনের নাম উল্লেখ ৪ হাজার জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

উক্ত ঘটনায় মিরান মোল্যা নামের আহত একজন ব্যাক্তি মৃত্যুবরন করেছে ঘটনার ঐদিন রাতেই জুবায়ের হোসেন নামের এক যুব মৃত্যুবরন করেছে । সালথা উপজেলার সহিংসতায় এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ২ জন। সালথা উপজেলা পরিষদ,থানা,ভূমি অফিস,মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স এলাকায় তান্ডব চালানোর মামলার বিষয়টি ফরিদপুর পুলিশ সুপার নিশ্চিত করেছেন। এ মামলার এজাহারভুক্ত ১৩ জন আসামীকে গ্রেফতার  করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মামলার এজাহারভুক্ত আসামি উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের গোপালিয়া গ্রামের মো. নুরু শেখ (১৮),মিনাজদিয়া গ্রামের  মো. ইউনুস মাতুব্বর (৬০),ফুকরা গ্রামের আবুল কালাম শেখ (৩৫), চিলারকান্দা গ্রামের শহিদুল শেখ (৩২), ইউসুফদিয়া গ্রামের রাব্বি মাতুব্বর (১৯),ও গোপালিয়া গ্রামের আমির মোল্যা (৩০)। অন্যরা হলেন, রিপন শেখ (৩২), ইসরাইল ইলিয়াস মোল্যা (২৭),পিসনাইল গ্রামের মো. রুবেল ফকির (২৫), সোনাপুর গ্রামের মো. রাকিবুল ইসলাম (১৮) ও বিনোকদিয়া গ্রামের মো. সাইফুল ইসলাম (১৮)বিনোকদিয়া গ্রামের মো. সজিব কাজী (১৯), ।

সালথা উপজেলার ঘটনায় ফরিদপুর জেলা প্রশাসন তিন সদস্যের দুটি কমিটি গঠন করেছেন উক্ত কমিটিকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। সহিংস ঘটনায় সালথা ইউএনও, এবং এসিল্যান্ডের দুটি সরকারি গাড়ি সম্পুর্ণ জ্বালিয়ে দিয়েছে । ঘটনার রাতে উত্তপ্ত পরিস্থিতি  নিয়ন্ত্রণে আনতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী  ৫৮৮ রাউন্ড শট গানের গুলি ছুড়ে, এছাড়াও ৩২ রাউন্ড টিয়ার শেল, ২২টি সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ এবং ৭৫ রাউন্ড রাইফেলের গুলি ছুড়ে। সালথা উপজেলার স্থানীয় বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম বলেন, সালথায় কাইজ্যা হয় কিন্তু এমন ঘটনা কখনো ঘটতে দেখেননি তিনি। আজ বৃহস্পতিবার  শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপির নেতৃত্বে একটি দল সরেজমিনে  আসবেন ঘটনার বিস্তারিত জানতে। 

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *